রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১২:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
কু্ষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসি’র সাধারন সম্পাদক সোহেল রানা’র ছোট বোনের দাফন সম্পন্ন কুষ্টিয়া ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান অনিককে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি চালায় খলিসাকুন্ডির মসজিদে মসজিদে পবিত্র ঈদুল আজহার জামাত খলিসাকুন্ডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক (ভারপ্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষক রমজান আলী আর নেই দৌলতপুরে সাবেক এম.পি আফাজ উদ্দিনের দাফন সম্পন্ন সাবেক সংসদ সদস্য আফাজ উদ্দিন আহমদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক দৌলতপুরে পুলিশের অভিযানে ২ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক বর্ষিয়ান আওয়ামীলীগ নেতা আফাজ উদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে হানিফ এমপি’র শোক আফাজ উদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের শোক কুষ্টিয়ায় মুজিব শতবর্ষে বৃক্ষ নিধনের প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

কালীগঞ্জ বারোবাজারে বাসের সাথে ট্রাকের ধাক্কা: বাস উল্টে নিহত ১১, আহত ৫০

স্টাফ রিপোর্টার: / ২৮০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ৭:০০ pm

বেপরোয়া গতিতে বাস চালনা!

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজারের তেল পাম্পের নিকট মর্মান্তিক এক বাস সড়ক দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই ১০ জন নিহত ও ৩০ জন আহত হওয়ার পর সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ি নিহত ১১ জন। এতে আহত হয়েছেন আরো কমপক্ষে ৫০ জন। এর মধ্যে কালীগঞ্জ হাসপাতালে ২৫ জন আহত ব্যাক্তি ভর্তি রয়েছে। ঝিনাইদহে ও যশোরে অনেকে ভর্তি করা হয়েছে। কালীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তির মধ্যে ১২ জনের অবস্থা আশংকাজনক। বুধবার বিকেল তিনটার দিকে জিকে পরিবহন এবটি বাস যশোর-ঝিনাইদহ সড়কের বারোবাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। আহতদের যশোর জেনারেল হাসপাতাল ও ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার জিকে পরিবহনের একটি বাস যাত্রী নিয়ে খুলনা থেকে মাগুরার দিকে যাচ্ছিল। বাসটি বারোবাজার পার হয়ে আমজাদ আলী ফিলিং স্টেশনের সামনে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে যাত্রীবাহী বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ওপর আড়াআড়ি রাস্তার উপরে উল্টে পড়ে। ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি কামাল হোসেন নামে বাসের এক যাত্রী বলেন, ‘আমি যশোর শহরের চাঁচড়া মোড় থেকে থেকে বাসে উঠি কুষ্টিয়া যাবার জন্য। বাসটি অনেক বেপরোয়া গতিতে চলছিল। যাত্রীরা সবাই চালকের গাড়ি চালানো দেখে আমরা সবাই আতঙ্ক হয়ে পড়ি। বাসের ভেতর আটকে পড়া আহত যাত্রীরা বের হওয়ার জন্য চিৎকার করছিল। হতাহতদের রক্তে তখন কালো পিচের রাস্তা লাল হয়ে ¯্রােত হয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিস কালীগঞ্জ স্টেশনের কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ বলেন, ‘আমরা দুর্ঘটনাস্থলে গিয়ে দশজনের মরদেহ উদ্ধার করেছি। জিকে পরিবহন ঢাকা মেট্রো-গ-১১০২১৪ বাসটি রাস্তার ওপর উল্টে পড়ে ছিল। পুলিশ ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাসের মধ্যে থেকে হতাহতদের উদ্ধার করা হয়। তিনি বলেন ঘটনাস্থলেই ৯ জন ও পরে কালীগঞ্জ হাসপাতালে ২ জন মারা যান। এদিকে, রাস্তার ওপর বাস উল্টে থাকায় সড়কটিতে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায় প্রায় ২ ঘন্টার বেশি। ফলে উভয় পাশে শত শত যানবাহন অন্যান্য যানবাহন আটকে পড়ে। তবে বিকেল পাঁচটা নাগাদ রাস্তা খুলে দিতে সক্ষম হয় পুলিশ। রাস্তার দু,পাশে বিভিন্ন পরিবহনের যাত্রীরা গাড়ি থেকে নেমে ভ্যান, নছিমন, করিমনে চোলে যান। দূর্ঘটনার খবর পেয়ে ঝিনাইদহ ৪ আসনের এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার, ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, পুলিশ সুপার, কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী আফিসার সূবর্না রানী সাহা,পৌর মেয়র আশরাফুল আলম ঘটনাস্থলে ছুটে যান। নিহত ৯ জনের লাশ এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার নিজেই গাড়ি চালিয়ে কালীগঞ্জ হাসপাতালে আনেন। পরে বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে এক মহিলা মারা যান। মৃত্যের সংখ্যা দাড়ালো ১১ জনে। এর মধ্যে ৬ জন পুরুষ, ৪ জন মহিলা ও ১ জন শিশু রয়েছে। নিহতের মধ্যে যশোর এম এম কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের মাস্টোর্সের (২০১৭-১৮) সেশনের ছাত্র মো: মোস্তাফিজুর রহমান, ক্লাস রোল-৩৫৭, রেজি: ….. ৫৪৭ নিহত হয়েছে। তার বাড়ি কালীগঞ্জ উপজেলার কাঠালিয়া সুন্দরপুর গ্রামে,রেশমা খুতুন (২৫) স্বামী মানিক মিয়া, বাড়ি চুয়াডাঙ্গা, ইউনুচ আলী(২৬) পিতা ওয়াজেদ আলী,বাড়ি ঝিনাইদহ নাথকুন্ডু গ্রামে, ওলিউর রহমান(২৬),পিতা জান্নাতুল আলম,বাড়ি ঝিনাইদহ। ঢাকা ঝিকাতলা গ্রামের সিফাত উল্লাহ(১৬),। আহতরা হলেন ঝিনাইদহের রবিউল ইসলাম(৩০),মাগুরার সাহেব আলী(৫০) ঢাকার ধানমন্ডি জিগাতলার রফিকুল ইসলামের ছেলে সিফাত (১৫) ও তার বোন মিথিলা (২১), ঝিনাইদহের লাউঝিরা গ্রামের খঞ্জের আলীর ছেলে আবদুর রহিম (২৪), কালীগঞ্জ বারবাজারের আবদুল আজিজ (২৭), কোটচাঁদপুরের রামচন্দ্রপুর গ্রামের আবদুল হকের ছেলে মাহফুজ (২৫), কোটচাঁদপুর আড়পাড়ার মুজিবুল্লার ছেলে আলম (৩০), আড়পাড়ার শান্তা (২৭), ঝিনাইদহের তাহেরহুদা গ্রামের বিউটি (২৮), কোটচাঁদপুরের কাঁঠালিয়া গ্রামের কাবিল (৩০) ও কালীগঞ্জের একতারপুর গ্রামের শিমুল (২৬)। কালীগঞ্জ থানার ওসি মাহফুজুর রহমান জানান, আহতদের উদ্ধার করে যশোর ও কালীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতদের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। দুর্ঘটনার পর ঝিনাইদহ ৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারা, ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুবর্ণা রানী সাহা, ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বদরুদ্দোজা সহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা পরিদর্শন করেন।

 

 সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের বেশির ভাগ মাস্টার্সের শিক্ষার্থী

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজারের তেল পাম্পের নিকট মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের বেশির ভাগই মাষ্টার্সের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে কালিগঞ্জ সুন্দরপুর গ্রামের ইসহাক আলীর ছেলে মোস্তাাফিজুর রহমান (২৫) এমএসএস ফাইনাল পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পরিবারের সবাই অপেক্ষা করছিল তার জন্য। কিন্ত না! তিনি ফিরলেন লাশ হয়ে। সাদা কফিনে মোড়া লাশটি যখন বাড়ির আঙ্গিনায় ফিরলো তখন সবাই বাকরুদ্ধ। চুয়াডাঙ্গার নেহালপুর গ্রামের গৃহবধু রেশমা খাতুনও একই বাসে পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। সঙ্গে ছিলেন নগদা গ্রামের শুভ। তিনিও মাষ্টার্স পরীক্ষা দিয়ে মৃত্যু মিছিলের সহযাত্রী হন। এই অকাল মৃত্যুর ফলে তাদের আর পরীক্ষার রেজাল্ট জানা হলো না। ঝিনাইদহের সদর উপজেলার নাথকুন্ডু গ্রামের ওয়াহেদ আলীর ছেলে ইউনুস আলী, কালীগঞ্জের রণজিৎ দাসের ছেলে সনাতন দাস ও কোটচাঁদপুর উপজেলার হরিণদিয়া গ্রামের নতুন মসজিদ পাড়ার মীর মোহাম্মদের ছেলে সোহাগ হোসেন সবাই পরীক্ষা দিয়ে ওই বাসে বাড়ি ফিরছিলেন। এক সঙ্গে ৬ শিক্ষার্থীর মৃত্যু এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। কেও ছেলে, ভাই, স্ত্রী ও মেয়েকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পেড়েছেন।

 নিহত ১১ জনের মধ্যে ৯ জনের পরিচয় মিলেছে
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজারের তেল পাম্পের নিকট মর্মান্তিক বাস সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১১ জনের মধ্যে ৮ জনের পরিচয় মিলেছে। এরা হলেন, কালিগঞ্জ সুন্দরপুর গ্রামের ইসহাক আলীর ছেলে মোস্তাাফিজুর রহমান (২৫) ঝিনাইদহের সদর উপজেলার নাথকুন্ডু গ্রামের ওয়াহেদ আলীর ছেলে ইউনুস আলী (২৪) চুয়াডাঙ্গা জেলার ডিঙ্গেদাগ্রামের আব্দুর রশিদীর মেয়ে রেশমা খাতুন (২৫), চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার নগদা গ্রামের জিন্নাত বিশ্বাসের ছেলে শুভ (২২), কালীগঞ্জের রণজিৎ দাসের ছেলে সনাতন দাস (২৫), কোটচাঁদপুর উপজেলার হরিণদিয়া গ্রামের নতুন মসজিদ পাড়ার মীর মোহাম্মদের ছেলে ছাত্রলীগ নেতা হারুন অর রশিদ সোহাগ (২৫), কালীগঞ্জের জগন্নাথপুরের ব্যবসায়ী আব্দুল আজিজ, শৈলকুপার আব্দুল আজিজ (৬০) ও মাগুরা ড্রাইভার উজ্জল হোসেন (৩৭)। খবর পেয়ে পুলিশ, দমকল বাহিনী ও নিকটস্থ গ্রামের মানুষ উদ্ধার অভিযানে অংশ গ্রহন করেন। বাসটি উল্টে যাওয়ার কারণে প্রায় দেড় ঘন্টা যশোর কালীগঞ্জ সড়কে বাস চলাচল বন্ধ ছিল। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, বুধবার বিকালে যশোর কালীগঞ্জ সড়কের বারোবাজার তেল পাম্পের কাছে এমকে পরিবহনের বাসটি পৌছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাক ধাক্কা দিলে বাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার উপর উল্টে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই ১০ জন নিহত ও ৫০ বাস যাত্রী আহত হন। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ