রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১২:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
কু্ষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসি’র সাধারন সম্পাদক সোহেল রানা’র ছোট বোনের দাফন সম্পন্ন কুষ্টিয়া ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান অনিককে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি চালায় খলিসাকুন্ডির মসজিদে মসজিদে পবিত্র ঈদুল আজহার জামাত খলিসাকুন্ডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক (ভারপ্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষক রমজান আলী আর নেই দৌলতপুরে সাবেক এম.পি আফাজ উদ্দিনের দাফন সম্পন্ন সাবেক সংসদ সদস্য আফাজ উদ্দিন আহমদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক দৌলতপুরে পুলিশের অভিযানে ২ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক বর্ষিয়ান আওয়ামীলীগ নেতা আফাজ উদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে হানিফ এমপি’র শোক আফাজ উদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের শোক কুষ্টিয়ায় মুজিব শতবর্ষে বৃক্ষ নিধনের প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

‘মান্না দে’ খ্যাত একজন আজমত আলী

Reporter Name / ২২৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩০ মার্চ, ২০২১, ৮:৩৭ pm

আজমত আলী, পেশায় একজন সিএনজি চালক, হুবহু গাইতে পারেন উপমহাদেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী মান্না দের গান। তিনি কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুন্ডি গ্রামের বিশ্বাস পাড়ার পলান শেখের ছেলে । বর্তমানে তিনি জেলার মিরপুর উপজেলারধুবইল ইউনিয়নের কাদেরপুর গ্রামের বাসিন্দা।

 

 

আজমত আলী মান্না দের গান হুবহু গাইতে পারেন বলে এলাকার সঙ্গিতপ্রিয় মানুষ তাকে ডাকেন ‘মান্নাদে’ সম্বোধনে।

আজমত আলী একদিন বড় শিল্পী হবেন এই স্বপ্ন নিয়ে মাত্র ১২ বছর বয়সে বড় ভাই আক্কাস আলীর কাছে গান শেখা শুরু করেছিলেন । কিন্তু অল্প বয়সে বিয়ে করে সংসারী হয়ে যাওয়ায় বড় কন্ঠশিল্পী হবার রেসে থাকতে পারেননি তিনি। জীবিকার প্রয়োজনে আন্তঃজেলা ট্রাক ড্রাইভারী করতে হচ্ছে তাকে। ব্যাস্ততার মাঝেও বিভিন্নস্থান থেকে গান গাইবার আমন্ত্রন পান তিনি। বেশি ব্যাস্ততা থাকলে ইচ্ছা থাকা সত্বেও অনেকের গান গাইবার আমন্ত্রন রক্ষা করতে পারেন না। আর যখন ব্যাস্ততা থাকে না তখন আমন্ত্রন পেলে ষ্ট্রেজ অথবা ঘরোয়া গানের আসরে গান পরিবেশন করেন।

 

 

ষ্ট্রেজ কিংবা ঘরোয়া অনুষ্ঠানে আজমত আলী মান্নাদে’র আমি যে জলসা ঘরে, কি দেখলে তুমি আমাতে, কফি হাউজের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই, ‘ক’ ফোটা চোখের জল ফেলেছো তুমি, হাজার টাকার ঝাড় বাতিটা, শাওন রাতে যদি, সুন্দরী গো দোহায় মান করো না ও কাল কিছুতে ঘুম এলোনা সহ জনপ্রিয় গানগুলো গাইতে থাকেন তখন সেখানে উপস্থিত দর্শকরা মোহাচ্ছন্ন হয়ে আজমত আলীর সুরের জাদুর মাঝে হারিয়ে যান।

 

 

দুই ছেলে, এক,মেয়ের জনক আজমত আলীর একমাত্র প্রিয় শিল্পী মান্নাদে। তাই দেশ-বিদেশের অন্য কোন শিল্পীর গান তিনি কখনো তাঁর কন্ঠে গাইতে চেষ্টাও করেন না। তবে সময় পেলে মাঝে মাঝে তিনি পাকিস্থানের গজল সম্রাট গোলাম আলী ও ভারতের অনুপ জালোটার গান শুনে থাকেন।

 

 

এলাকার সঙ্গিত বোদ্ধাদের ধারনা সরকারীভাবে যথাযথ পৃষ্টপোষকতার মাধ্যমে নিবিড় সঙ্গিত চর্চার সুযোগ পেলে ট্রাক ড্রাইভার আজমত আলী বাংলাদেশের মান্নাদে হিসাবে আবির্ভূত হতে পারতেন।

 

 

আজমত আলী ৩০ বছর অন্যের ট্রাকে ড্রাইভারী করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ৬ বছর নিজেই একটি সিএনজি কিনে কুষ্টিয়া-বামুন্দি রুটে ভাড়ায় চালান ।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ