রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৪:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
কু্ষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসি’র সাধারন সম্পাদক সোহেল রানা’র ছোট বোনের দাফন সম্পন্ন কুষ্টিয়া ছাত্রলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান অনিককে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি চালায় খলিসাকুন্ডির মসজিদে মসজিদে পবিত্র ঈদুল আজহার জামাত খলিসাকুন্ডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক (ভারপ্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষক রমজান আলী আর নেই দৌলতপুরে সাবেক এম.পি আফাজ উদ্দিনের দাফন সম্পন্ন সাবেক সংসদ সদস্য আফাজ উদ্দিন আহমদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক দৌলতপুরে পুলিশের অভিযানে ২ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক বর্ষিয়ান আওয়ামীলীগ নেতা আফাজ উদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে হানিফ এমপি’র শোক আফাজ উদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের শোক কুষ্টিয়ায় মুজিব শতবর্ষে বৃক্ষ নিধনের প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

মিরপুরে প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীদের পেটানোর অভিযোগ আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে

মিরপুর প্রতিনিধি: / ১৮১ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২১, ৫:৩৯ pm

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার মালিহাদে প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীদের স্থানীয় গাড়ি (আলমসাধু) থামিয়ে টাকা ছিনতাই ও পেটানোর অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ নেতা আকরামের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় মিরপুর উপজেলার মালিহাদ ইউনিয়নের আশাননগর এলাকার মৎস্য ভবনের সন্নিকটে এ ঘটনা ঘটে।

 

 

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেলে ভুক্তভুগি ব্যবসায়ীদের মধ্য থেকে আনোয়ার হোসেন কয়েকজনের নাম উল্লেখসহ মিরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, মালিহাদ ইউনিয়নের ঝুটিয়াডাঙ্গা এলাকার ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন (২৮), ছানোয়ার (৩৫), দিপু (২৮), শাকিল (২৫) ও জাফিরুল হক বল্টু (৩২) এক সাথে শাক আলু বোঝায় করে ঝুটিয়াডাঙ্গা থেকে আলমসাধু যোগে কুষ্টিয়ার বৃত্তিপাড়া হাটের উদ্যোশ্যে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মিরপুর উপজেলার মালিহাদ ইউনিয়নের আশাননগর এলাকার মৎস্য ভবনের সন্নিকটে ঝুটিয়াডাঙ্গা এলাকার মৃত নবীছদ্দিনের ছেলে আকরাম হোসেন (৬৫), জহির উদ্দিনের ছেলে ছানোয়ার (৫০), মৃত সুন্নত মন্ডলের ছেলে গাফ্ফার (৩৫), আশাননগর এলাকার আকবরের ছেলে শাজাহান (৩০), কবির (২৮)সহ ৪/৫জন ব্যক্তি আলমসাধু গতি রোধ করে। আলমসাধুতে থাকা আনোয়ার হোসেন, ছানোয়ার, দিপু, শাকিল ও জাফিরুল হক বল্টুকে লাঠিসোটা, রড দিয়ে মারধর করে আহত করে। সেই সাথে তাদের কাছ থেকে নগদ ও শাক আলু ছিনতাই করে। এবং আলমসাধু থেকে কয়েকবস্তা শাক আলু পাশের পাঙ্গাশীয়া নদীতে ফেলে দেয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদি হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করেন। আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনার সময় তারা আইনের সহায়তা নিতে নিশেধ করে। সেই সাথে তারা এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় আমরা বর্তমানে আবারো হামলার আশঙ্কায় রয়েছি।

 

 

 

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মস্তফা জানান, মারধরের একটা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। পুলিশ পাঠানো হয়েছে তদন্ত সাপক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।




আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ