1. raselahamed29@gmail.com : admin :
সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১২:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
দৌলতপুরের দুই মাদক ব্যবসায়ী ফেন্সিডিল,গাঁজা ও মাইক্রোসহ খোকসায় পুলিশের অভিযানে আটক দিনে দুপুরে খোকসায় ডাচ্-বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিং এ দুঃসাহসিক চুরি দৌলতপুরে সৎ ভাইকে গলা কেটে হত্যা দৌলতপুর থানা পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম প্রাগপুরে র‌্যাবের অভিযান: ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আসাদুজ্জামান লিপ্টন আটক ভেড়ামারা সরকারি মহিলা কলেজের কু-প্রস্তাবকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ ভেড়ামারায় সাবেক প্রধান শিক্ষক ফারজানা ইসলাম মিতা করোনায় মৃত্যু কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের রায়ট ড্রিল ও আর্মস হ্যান্ডেলিং প্রশিক্ষণ কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে হেরোইনসহ হরিশংকরপুরের রতন আটক র‌্যাবের অভিযান, দৌলতপুরের মাদক ব্যবসায়ী শিপন আলী ইয়াবাসহ আটক




মিরপুরে প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীদের পেটানোর অভিযোগ আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে

মিরপুর প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৪৮ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার মালিহাদে প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীদের স্থানীয় গাড়ি (আলমসাধু) থামিয়ে টাকা ছিনতাই ও পেটানোর অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ নেতা আকরামের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় মিরপুর উপজেলার মালিহাদ ইউনিয়নের আশাননগর এলাকার মৎস্য ভবনের সন্নিকটে এ ঘটনা ঘটে।

 

 

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেলে ভুক্তভুগি ব্যবসায়ীদের মধ্য থেকে আনোয়ার হোসেন কয়েকজনের নাম উল্লেখসহ মিরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, মালিহাদ ইউনিয়নের ঝুটিয়াডাঙ্গা এলাকার ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন (২৮), ছানোয়ার (৩৫), দিপু (২৮), শাকিল (২৫) ও জাফিরুল হক বল্টু (৩২) এক সাথে শাক আলু বোঝায় করে ঝুটিয়াডাঙ্গা থেকে আলমসাধু যোগে কুষ্টিয়ার বৃত্তিপাড়া হাটের উদ্যোশ্যে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মিরপুর উপজেলার মালিহাদ ইউনিয়নের আশাননগর এলাকার মৎস্য ভবনের সন্নিকটে ঝুটিয়াডাঙ্গা এলাকার মৃত নবীছদ্দিনের ছেলে আকরাম হোসেন (৬৫), জহির উদ্দিনের ছেলে ছানোয়ার (৫০), মৃত সুন্নত মন্ডলের ছেলে গাফ্ফার (৩৫), আশাননগর এলাকার আকবরের ছেলে শাজাহান (৩০), কবির (২৮)সহ ৪/৫জন ব্যক্তি আলমসাধু গতি রোধ করে। আলমসাধুতে থাকা আনোয়ার হোসেন, ছানোয়ার, দিপু, শাকিল ও জাফিরুল হক বল্টুকে লাঠিসোটা, রড দিয়ে মারধর করে আহত করে। সেই সাথে তাদের কাছ থেকে নগদ ও শাক আলু ছিনতাই করে। এবং আলমসাধু থেকে কয়েকবস্তা শাক আলু পাশের পাঙ্গাশীয়া নদীতে ফেলে দেয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদি হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করেন। আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘটনার সময় তারা আইনের সহায়তা নিতে নিশেধ করে। সেই সাথে তারা এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় আমরা বর্তমানে আবারো হামলার আশঙ্কায় রয়েছি।

 

 

 

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মস্তফা জানান, মারধরের একটা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। পুলিশ পাঠানো হয়েছে তদন্ত সাপক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।






নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....







© All rights reserved © 2015 thekushtiareport24.com

Design & Developed By : Anamul Rasel